ফ্রিতে নিয়ে নিন ad block root app,সেট এর ব্রাউজার থেকে শুরু করে সব এড অফ করে।

আসসালামু আলাইকুম।

কেমন আছেন সবাই? আশা করি ভালোই আছেন। আমি আপনাদের দোয়া ভাল আছি।

আপনার ফোন রুট করেছেন ? কিন্তু কোন লাভ হল না? দেখুন তাহলে রুট করার মজা।
আজ আমি আপনাদের জন্য নিয়ে এলাম একটি রুট অ্যাপ।

আজকের অ্যাপ নাম:-

adblock root app

Click Her free Download

সেট এর ব্রাউজার থেকে শুরু করে সব এড অফ করে। দারুন কাজের অ্যাপ।এটি সম্পুর্ন এড ফ্রি। যারা অ্যান্ড্রয়েড স্মার্টফোন ব্যবহার করেন তাদের জন্য ভালো খবর। বর্তমানে অনলাইনে অ্যাডের উৎপাত এমন ভাবে বেড়ে গেছে যে, তাতে করে একটু শান্তিতে ইন্টারনেট ব্রাউজ করবেন তার আর কোন উপায়
নেই। যেখানেই যান না কেন অ্যাড আর আপনার পিছু ছাড়বে না।
তবে আজকে থেকে আর কোন সমস্যা
নেই কারন এখন থেকে আর কোন
ঝামেলা অর্থাৎ বিরক্তিকর অ্যাড
ব্যতীত নেট ব্রাউজ করতে পারবেন।

Click Her free Download

তো চলুন দেখি কিভাবে সেটি করবেন-

Palm Springs commercial photography

মজার বিষয় হল যে অ্যাপস টি ব্যবহার করে আপনি কাজটি করবেন সেই
অ্যাপস টি গুগল প্লে-ষ্টোরে নেই।কেন?এতো জনপ্রিয় একটি অ্যাপস গুগল প্লেতে নেই কেন?

এর কারন হল,
এটি প্রায় গুগলের সকল ধরনের অ্যাড ব্লক করে রাখে যার দরুন
তাদের অনেক বড় বা প্রধান একটি আয়ের উৎস বন্ধ পড়ে যায়। দুর্ভাগ্য বসতো গুগল এখনো এর কোন সমধান খুঁজে
পাইনি আর সে জন্যই “গুগল মামা”
আপাতত এই অ্যাপস টি তাদের
মার্কেটপ্লেস থেকে সরিয়ে
দিয়েছে।
তবে সমস্যা নেই কারন আপনি চাইলে এখান থেকে সেটি খুব সহজেই সেটি ডাউনলোড করে নিতে পারবেন।

Click Her free Download

পিসি তে ডাউনলোড করতে কোন
সমস্যা হবে না, কিন্তু তাও কোন
সমস্যা হলে ফায়ারফক্স ইউস করতে
পারেন। মোবাইল থেকে ডাউনলোড
করতে সমস্যা হলে uc browser থেকে
ডাউনলোড করুন। uc browser থেকে
ডাউনলোড করতে কোন সমস্যা হবে না।
– টিউনটি আগে প্রকাশিত:
Free Android App-ফ্রি এন্ড্রয়েড সফটওয়্যার।

Advertisements

ফ্রিতে নিয়ে নিন ad block root app,সেট এর ব্রাউজার থেকে শুরু করে সব এড অফ করে।

আসসালামু আলাইকুম।কেমন আছেন সবাই? আশা করি ভালোই আছেন। আমি আপনাদের দোয়া ভাল আছি।
আপনার ফোন রুট করেছেন ? কিন্তু কোন লাভ হল না? দেখুন তাহলে রুট করার মজা।আজ আমি আপনাদের জন্য নিয়ে এলাম একটি রুট অ্যাপ।
আজকের অ্যাপ নাম:-

adblock root app

Click Her free Download

সেট এর ব্রাউজার থেকে শুরু করে সব এড অফ করে। দারুন কাজের অ্যাপ।এটি সম্পুর্ন এড ফ্রি। যারা অ্যান্ড্রয়েড স্মার্টফোন ব্যবহার করেন তাদের জন্য ভালো খবর। বর্তমানে অনলাইনে অ্যাডের উৎপাত এমন ভাবে বেড়ে গেছে যে, তাতে করে একটু শান্তিতে ইন্টারনেট ব্রাউজ করবেন তার আর কোন উপায়
নেই। যেখানেই যান না কেন অ্যাড আর আপনার পিছু ছাড়বে না।
তবে আজকে থেকে আর কোন সমস্যা
নেই কারন এখন থেকে আর কোন
ঝামেলা অর্থাৎ বিরক্তিকর অ্যাড
ব্যতীত নেট ব্রাউজ করতে পারবেন।

Click Her free Download

তো চলুন দেখি কিভাবে সেটি করবেন-

Palm Springs commercial photography

মজার বিষয় হল যে অ্যাপস টি ব্যবহার করে আপনি কাজটি করবেন সেই
অ্যাপস টি গুগল প্লে-ষ্টোরে নেই।কেন?এতো জনপ্রিয় একটি অ্যাপস গুগল প্লেতে নেই কেন?

এর কারন হল,এটি প্রায় গুগলের সকল ধরনের অ্যাড ব্লক করে রাখে যার দরুন
তাদের অনেক বড় বা প্রধান একটি আয়ের উৎস বন্ধ পড়ে যায়। দুর্ভাগ্য বসতো গুগল এখনো এর কোন সমধান খুঁজে
পাইনি আর সে জন্যই “গুগল মামা”
আপাতত এই অ্যাপস টি তাদের
মার্কেটপ্লেস থেকে সরিয়ে
দিয়েছে।
তবে সমস্যা নেই কারন আপনি চাইলে এখান থেকে সেটি খুব সহজেই সেটি ডাউনলোড করে নিতে পারবেন।
Click Her free Download

পিসি তে ডাউনলোড করতে কোন
সমস্যা হবে না, কিন্তু তাও কোন
সমস্যা হলে ফায়ারফক্স ইউস করতে
পারেন। মোবাইল থেকে ডাউনলোড
করতে সমস্যা হলে uc browser থেকে
ডাউনলোড করুন। uc browser থেকে
ডাউনলোড করতে কোন সমস্যা হবে না।</p

– টিউনটি আগে প্রকাশিত: Free Android App-ফ্রি এন্ড্রয়েড সফটওয়্যার।

ফ্রিতে নিয়ে নিন Es File Explorer pro..

আসসালামু আলাইকুম।
অ্যান্ড্রয়েডে ফাইল পত্র ম্যানেজ করার জন্য আমাদের দরকার পরে একটাফাইল ম্যানেজারের।

image

আর অ্যান্ড্রয়েডের সেরা ফাইল ম্যানেজার হচ্ছে Es File Explorer(এইটা আমি মনে করি)। আজকে এর Es File
Explorer এর Pro ভার্সন

নিয়ে আপনাদের সামনে হাজির হয়েছি।চলুন একটু এইটার গুনাবলি গুলো জানার
চেষ্টা করি:-এটি সম্পুর্ন এড ফ্রি কাস্টোমাইজ করতে পারবেন যেমন-
কালার প্যানেল,স্টার্ট পেইজ অপশন
থিম অপশন পাবেন এই অ্যাপস কে কাস্টোমাইজ করার জন্য
পিসি থেকে মোবাইল বা মোবাইল থেকে পিসিতে ফাইল ট্রান্সফার
করতে পারবেন
ক্লাউড ম্যানেজমেন্ট সিস্টেম
পাবেন যাতে আপনি ড্রপবক্স,গুগল
ড্রাইব সহ আরও কিছু প্লাটফর্ম পাবেন আপনার দরকারি ফাইল গুলো আপ করারজন্য
এইটা ত জানলাম Pro ভার্সন এর
গুনাবলি।

Click Her free Download

আর Es File Explorer এর গুনাবলি ত আপনারা জানেনই,তাই না ? Es File
Explorer এর সাথে Pro ইউজারদের শুধু উপরের সুবিধা গুলো যুক্ত হবে Es File Explorer এর কিছু উল্লেখযোগ্য ফিচার হল –
ফাইল ম্যানেজার,
অ্যাপ ম্যানেজার,
স্টোরেজ এনালাইসিস,
রিমোট ফাইল ম্যানেজার,
আর্চিব ম্যানেজার,
টেক্সট ভিউয়ার এবং এডিটর।

আরও অনেক,বাকিগুলো আপনারা ইউজ করেই দেখে নিন অনেক ত প্যাচাল পারলাম এবার চলুন
ডাউনলোড করে নিই।

Click Her free Download

এই অ্যাপসটির দাম হল ২.৯৯ ডলার যদি কিনে ইউজ করতে চান তাহলে প্লে স্টোরে যেয়ে ডাউনলোড করে নিন

Click Her free Download

ডাউনলোড করুন এখান থেকে

– টিউনটি আগে প্রকাশিত: Free Android App-ফ্রি এন্ড্রয়েড সফটওয়্যার।

নিয়ে নিন নতুন বছরের নতুন উপহার,Youtube Video ডাউনলোডের জন্য সুপার মুডেড ভার্সন নিয়ে হাজির হলাম।

আসসালামু আলাইকুম।অনেক দিন পরে আবার ব্লগে  আসলাম। আমি আপনাদের আজ আমি আপনাদের জন্য নিয়ে
এলাম দারুন একটি সফটওয়্যার। YouTibeএর ভিডিও ডাউনলোড করার জন্য অনেক সফটওয়্যার তো ব্যবহার করেছেন, কিন্তুু তেমন সুফল পাননি। অামি যেই অ্যাপটা দিব এইটা দিয়ে 1080p ভিডিও ডাউনলোড করতে পারবেন। এটা একবার ব্যবহার করে দেখুন ভালো লাগবে।

image

চলুন এই সফটওয়্যারটির কিছু বৈশিষ্ট্য দেখে নিইঃ

ডাউনলোড করতে এখানে ক্লিক করুন।

image

Click Her Download!!

DOWNLOAD IN MULTIPLE RESOLUTIONS
MP4 videos are available in resolutions:
choose the small size of 360 pixels or the
high-definition 1080 pixels.
DIRECT MP3 DOWNLOADS
Download any YouTube music video directly
as an MP3 file. No extra encoding process or
plugin needed. Save space and listen to your
favorite music video anytime you want.
SEARCH VIDEOS WITH KEYWORDS
Search a video with keywords. Easily find the
exact video you want.
DISCOVER NEW VIDEOS
Explore videos in your favorite categories like
Music and Movies. Discover new videos with
recommended lists from our curators.
MANAGE VIDEO DOWNLOADS
Pause, cancel or resume a video download.
Delete the videos you don’t need anymore.
Manage all of your video downloads in one.

আশা করি আপনাদের ভালো লাগবে।
আর যেকোন সমস্যা হলে আমাকে জানান।

Street children বা পথ শিশু।

image

স্যার ৫ টেহা দ্যান, সক্কাল থেইয়া কিছুই খাই নাই,,,,
৫ টেহা দ্যান স্যার…
কথাগুলো বলছিল পথ শিশু রনি। উত্তরা নর্থ টাওয়ারের সামনে রিকশা থেকে নামতেই ঘিরে ধরলো ৬-৭ বছর বয়সী ওরা ২ জন।

আরেকজনের নাম মুরাদ। মুরাদকে
খাবার কথা জিজ্ঞাসা করাতে বললো, ‘কতদিন গোশত দিয়া ভাত খাই না, আমরা রুটি কলা খাইয়া থাহি।‘ তোমরা কোথায় থাকো? একথা জিজ্ঞাসা করাতেই ২ জনই হাসতে হাসতে দৌড় মেরে পাশে আসা অটো রিকশা থেকে নামা কয়েকজন নতুন লোকের সামনে সেই সুর তুলে টাকা চাইতে লাগলো।

এদেরকে ছিন্নমূল শিশু বা
সুবিধাবঞ্চিত পথশিশু বা পথশিশু যে নামেই ডাকি না কেন শহরের চলার পথে সন্ধান মিলবে এমন হাজারো শিশু। এদের বেশির ভাগ শিশুরই মা- বাবা নেই। রাত্রি যাপন করে রাজধানীর বিভিন্ন ফুটপাথে,
মার্কেট বা অফিসের বারান্দায়।
ছিন্ন, নোংরা বস্ত্র আর হাত-পায়ে
ময়লা, কাদা লাগানো এসব শিশুর
সবাই কোনো না কোনো কাজে ব্যস্ত থাকে। তবে সে কাজ লেখাপড়া বা খেলার জন্য নয়। দিনের সবটুকু সময় তাদের খাটতে হয় খাবারের জন্য।

দেশে পথশিশুর সংখ্যা কম নয়।
সম্প্রতি জাতিসংঘ্যের দেয়া তথ্য
অনুযায়ী, বাংলাদেশে পথশিশুর
সংখ্যা প্রায় ১৪ লাখ।

image

সাত বছরের শিশু জুয়েল। বাবা-মার বিচ্ছেদের পর মানিকগঞ্জ  থেকে চলে আসে ঢাকায়। আশ্রয় নেয় কমলাপুর রেল স্টেশনে। সেখানে পরিচয় হয় আরো কয়েক পথশিশুর সঙ্গে। তারপর পথশিশুদের সঙ্গেই জুয়েলের চলাফেরা শুরু। রাস্তায় রাত কাটানো, সারাদিন ধুলো-ময়লার সঙ্গে সময় কাটানো।

এভাব জুয়েলের মতো আরো অনেক পথশিশুর দিন কাটে। ওরা জানে না ওদের ভবিষ্যৎ কি?

ছিন্নমূল বা পথশিশুদের অনেকেই হয়তো সুবিধা কথাটির অর্থই বোঝে না। স্কুল, উন্নত ভবিষ্যৎ, খাবার, চিকিৎসা এসব সুবিধা দূরে থাক, দিনশেষে একটা নির্দিষ্ট থাকার জায়গা পর্যন্ত তাদের নেই। শহরের বড় রাস্তার ফুটপাতই তাদের ঘরআর বাহির।

সুবিধাবঞ্চিত এসব শিশু হরেক রকম ব্যস্ততায় থাকে। ফুল হাতে কাউকে বলছে, ‘একটা ফুল
নিয়া যান’, নয়তো কেউ বড়
ময়লাভর্তি বস্তা নিয়ে হেঁটে যাচ্ছে, না হয় পথে পথেই ভিক্ষা করছে। বিভিন্ন ধরনের নির্যাতন ও হয়রানির শিকার হওয়া তো এদের জন্য সাধারণ ব্যাপার।

সুবিধাবঞ্চিত এসব পথশিশুর অনেকেই এসেছে দেশের প্রত্যন্ত অঞ্চল থেকে, না হয় জন্ম হয়েছে শহরের কোনো রাস্তার পাশে। এসব হতদরিদ্র শিশুর অনেকেই জানে না তাদের বাবা- মার কথা।

বিশ্লেষকরা জানান, সাধারণত সবাই বোঝে যেসব শিশু রাস্তায় থাকে, যারা ভাসমান তারাই পথশিশু। এক কথায় ঠিকানাবিহীন। বাবা-মার সঙ্গে বিচ্ছেদ। আজ এখানে তো কাল ওখানে। কোনো জায়গাতে স্থায়ী হয় না। তবে যে হারে পথশিশুর সংখ্যা বাড়ছে তাতে ২০১৬ সালে এ সংখ্যা
বেড়ে দাঁড়াবে ১৬ লাখে। ঢাকা-শহরে এ রকম লাখো পথশিশু
রয়েছে, এসব শিশুর জন্য কাজ করছে কিছুসংখ্যক এনজিও।

সংখ্যা এতই স্বল্প যে, এর মাধ্যমে এসব শিশুর অবস্থার কোনো পরিবর্তন আনা সম্ভব হচ্ছে না। তাই দেশের সার্বিক উন্নয়নের কথা
চিন্তা করে এনজিও এর সম্পৃক্ততার পাশাপাশি সরকার এবং দেশের সাধারন মানুষকে এগিয়ে আসতে হবে।

14,000 mobile phone SIMs registered against one National ID card: State Minister Tarana Halim

Around 75 percent of the 10 million SIM cards verified until now are ‘not registered properly’, says State Minister for Telecommunication
Tarana Halim.

According to her, a case of 14,000 SIMs purchased against a ‘fake’ National Identification (NID) card was found during the ongoing verification process for SIM card registrations.

“Until now, registrations of 10 million subscribers have been verified. Of them, only 2.34 million have been registered properly, which is around 25 percent,” Halim told the media on Tuesday before a meeting with stakeholders.

CEOs of operators and representatives from the EC’s NID registration wing, National Telecommunications Monitoring Cell and
Bangladesh Telecommunication Regulatory Commission attended the meeting.

Security concerns over use of SIMs registered dubiously led the government to order verifications and re-registartion of all SIM
cards.

Operators have been asked to recheck registration details and then allow re- registration of SIMs in operation.

“Data provided by the operators until Monday,
is insufficient. The operators have issued around 130 million SIM cards. Information of
only 7.65 percent of it is available until now,”
the minister said on Tuesday.
Airtel has provided details of 1.49 million users—just about 15.47 percent of its
subscribers’ base. Banglalink provided
information of 2.35 million or just 7.27 percent of its users, said Halim. Details of 414,000 customers have been given
by CityCell, which is 35.7 percent of its total
users. Robi provided details of 1.8 million (6.49
percent) and state-owned TeleTalk gave details of 1.6 million or 39.32 percent of its
subscribers. The country’s largest operator Grameenphone,
which has a subscriber base of over 50 million, has come up with details of only 2.2
million, accounting for a meagre 4.08 percent.
The minister said on Tuesday that several
incidents of registering SIMs with fake NIDs
and purchasing thousands of SIMs with a
single NID were found during the verification
process.
Three NIDs were found, which were used to
register between 6,000 and 11,000 SIMs from
different operators.
Halim said that SIM registration with biometric data will be started on a trial basis from November.

“This is a warning for the
users that they have to register properly. Operators will start using biometric details from December.

রুট (Root) কি ও কেন?

image

রুট(Root) কি ?
__________________________________

সবচেয়ে সহজ শব্দে বলা যায়, রুট
হচ্ছে অ্যাডমিনিস্ট্রেটর বা প্রশাসক। যদিও এর বাংলা অর্থ গাছের শিকড়,লিনাক্সের জগতে রুট বলতে সেই পারমিশন বা অনুমতিকে বোঝায় যা ব্যবহারকারীকে সর্বময় ক্ষমতার অধিকারী করে তোলে (অবশ্যই কেবল সেই কম্পিউটার, ডিভাইস বা সার্ভারে!)।

রুট হচ্ছে একটি পারমিশন বা অনুমতি। এই অনুমতি থাকলে ব্যবহারকারী সেই ডিভাইসে যা ইচ্ছে তাই করতে পারেন। উইন্ডোজ অপারেটিং সিস্টেমে ব্যবহারকারী অ্যাডমিনিস্ট্রেটর প্রিভিলেজ ছাড়া সিস্টেম ফাইলগুলো নিয়ে কাজ করতে পারেন না (যেগুলো সাধারণত সি ড্রাইভে থাকে)। লিনাক্সেও তেমনি রুট পারমিশন প্রাপ্ত ইউজার ছাড়া সিস্টেম অ্যাডমিনিস্ট্রেশনের কাজগুলো করা যায় না।

যিনি লিনাক্স- চালিত কম্পিউটার বা সার্ভারে যা ইচ্ছে তাই করতে পারেন অথবা যার সব কিছু করার অনুমতি রয়েছে, তাকেই রুট ইউজার বলা হয়। অনেক সময়
একে সুপারইউজার বলেও সম্বোধন করা হয়ে থাকে।

শব্দটি এতোই প্রচলিত হয়ে গেছে
যে, রুট ইউজার বলার বদলে সরাসরি রুট বলেই সেই ব্যবহারকারীকে সম্বোধন করা হয়। অর্থাৎ, আপনার লিনাক্স অপারেটিং সিস্টেমের আপনি যদি রুট অ্যাক্সেস প্রাপ্ত ব্যবহারকারী হন, তাহলে আপনি রুট।
__________________________________

image

লিনাক্স এবং অ্যান্ড্রয়েডঃ-
_______________________________

অনেকেরই হয়তো খটকা লাগতে শুরু করেছে যে, অ্যান্ড্রয়েড নিয়ে কথা বলতে এসে লিনাক্সকে টানা হচ্ছে কেন। মূলত, অ্যান্ড্রয়েড আপারেটিং সিস্টেমটি লিনাক্স
কার্নেলের উপর ভিত্তি করেই তৈরি করা হয়েছে। যারা কম্পিউটারে লিনাক্সভিত্তিক অপারেটিং সিস্টেম ব্যবহার করেছেন, তারা অ্যান্ড্রয়েড রুট করার পর কম্পিউটারের মতোই ফাইল সিস্টেম (রুট পার্টিশন) দেখতে পাবেন অ্যান্ড্রয়েডে, তখন বিষয়টা আরও স্পষ্ট হবে।
__________________________________

অ্যান্ড্রয়েডে রুট অ্যাক্সেসঃ-
_______________________________

লিনাক্স-ভিত্তিক অপারেটিং সিস্টেম ইন্সটল করার পর আপনার যেই পাসওয়ার্ড থাকবে, সেটি ব্যবহার করেই আপনি রুট অ্যাক্সেস পেয়ে যাচ্ছেন। এখন নিশ্চয়ই আপনার মনে প্রশ্ন জাগছে, অ্যান্ড্রয়েড ডিভাইসটিও তো আপনিই কিনেছেন, তাহলে আপনি কেন রুটঅ্যাক্সেস পাচ্ছেন না?

ট্রিকটা এখানেই। আপনি
ডিভাইসটি কিনেছেন ঠিকই,কিন্তু
আপনি কিন্তু অপারেটিং সিস্টেমটি ইন্সটল করেননি, তাই না?

ডিভাইস প্রস্তুতকারক ডিভাইসটি
প্যাকেটজাত করার আগে তাদের
কম্পিউটার থেকে লিনাক্স কার্নেলের উপর তৈরি অ্যান্ড্রয়েড অপারেটিং সিস্টেম ইন্সটল করে দিয়েছে। এখানে বলা বাহুল্য,অ্যান্ড্রয়েড অপারেটিং সিস্টেমের মূল ভিত্তিটা এক হলেও একেক কোম্পানি একেকভাবে একে সাজাতে বা কাস্টোমাইজ করতে পারেন।

এই জন্যই সনির একটি অ্যান্ড্রয়েড ডিভাইসের ইউজার ইন্টারফেসের সঙ্গে এইচটিসির একটি অ্যান্ড্রয়েড ডিভাইসের ইন্টারফেসের মধ্যে খুব কমই মিল পাওয়া যায়।
__________________________________

কেন মোবাইল রুট করা থাকে না?
_______________________________

ডিভাইস  প্রস্তুতকারকরা ইচ্ছে করেই ডিভাইস লক করে দিয়ে থাকেন। রুট ফোল্ডার/পার্টিশনে থাকা ফাইলগুলো অত্যন্ত প্রয়োজনীয়। এর কোনো একটি দুর্ঘটনাবশতঃ মুছে গেলে আপনার পুরো ডিভাইস কাজ করা বন্ধ করে দিতে পারে।

এছাড়াও ম্যালিশিয়াস বা
ক্ষতিকারক প্রোগ্রামও অনেক সময় রুট করা ডিভাইসের নিয়ন্ত্রণ নিয়ে
নিতে পারে। কিন্তু লক থাকা
অবস্থায় ব্যবহারকারী নিজেই রুট
অ্যাক্সেস পান না, তাই অন্য
প্রোগ্রামগুলোর রুট অ্যাক্সেস
পাওয়ার সম্ভাবনাও নেই বললেই
চলে।ডিভাইস লক করা থাকার আরেকটি কারণ হচ্ছে সিস্টেম অ্যাপ্লিকেশন ও ফাইল। অনেকেই ইন্টারনাল মেমোরি খালি করার জন্য বিভিন্ন অ্যাপ্লিকেশন এসডি কার্ডে ট্রান্সফার করে থাকেন। রুট করা থাকলে সিস্টেম অ্যাপ্লিকেশনগুলোও ট্রান্সফার
করে ফেলা যায়। কিন্তু অপারেটিং সিস্টেমের কিছু ফাইল রয়েছে যেগুলো ইন্টারনাল মেমোরির ঠিক যেখানে আছে সেখানেই থাকা আবশ্যক। ব্যবহারকারী যখন ডিভাইস রুট করেন, তখন স্বভাবতঃই অনেক কিছু জেনে তারপর রুট করেন।তখন বলে দেয়াই থাকে যে, কিছু কিছু সিস্টেম অ্যাপস এসডি কার্ডে ট্রান্সফার করলে সমস্যা হতে পারে।কিন্তু যদি স্বাভাবিক অবস্থায়ই সেট রুট করা থাকে,তাহলে ব্যবহারকারী না জেনেই সেটের ক্ষতি করতে পারেন।
__________________________________

কেন ডিভাইস রুট করবেন?
_______________________________
কেন ডিভাইস রুট করবেন? ডিভাইস রুট করার কারণ একেক জনের একেক রকম হয়ে থাকে। কেউ ডিভাইসের পারফরম্যান্স
বাড়ানোর জন্য বা ইন্টারনাল মেমোরি ফাঁকা করার জন্য রুট করে
থাকেন, কেউ ওভারক্লকিং করার
মাধ্যমে ডিভাইসের গতি
বাড়ানোর জন্য রুট করেন, কেউ
স্বাধীনভাবে কাজ করা ডেভেলপারদের তৈরি বিভিন্ন
কাস্টম রম ব্যবহার করার জন্য, কেউ বা আবার রুট করার জন্য রুট করে থাকেন। আমি নিজেও প্রথম রুট করেছিলাম কোনো কারণ ছাড়াই। পরে অবশ্য পারফরম্যান্স বাড়ানোর জন্য বিভিন্ন সিস্টেম অ্যাপ্লিকেশন ব্যবহার করতে শুরু করেছি যেগুলো রুট করা ডিভাইস
ছাড়া কাজ করে না। তবে সেসব
নিয়ে পড়ে কথা হবে। চলুন আগে এক নজর দেখে নিই রুট করার সুবিধা ও অসুবিধা।
সোর্স:- ইন্টারনেট।
ধন্যবাদ…পরের পর্বের আপক্ষায়ে থাকেন। ♥
ফেসবুকে আমি।

ফেসবুক হ্যাকি পর্ব ০৫ এবং শেষ।

আসসালামু আলাইকুম !!কেমন আছেন সবাই?

আশা করি আল্লাহর রহমতে ভালই আছেন সবাই। আমি ভাল আছি, যা হোক এবার কাজে আসি। 🙂

image

আজকে পর্ব নং :- ০৫
বিষয়ে :- ফেসবুক সুরক্ষা।

আমার গতো পোষ্ট শেষ হয়ে কুকি
দিয়ে। মনে আছে আপনাদের কুকি কী?

→ এখন 21st Century তে এসে অনেক শব্দের বিশাল পরির্বতন এসেছে,আর উদাহার নাই দিলাম।

→ Cookies ব্যবহৃত হয় session data স্টোর
করার জন্য এবং login data ইত্যাদির মতো গুরুত্বপূর্ণ তথ্যগুলোতেও প্রবেশ করা যায়
ইউজার এর system এ স্টোর করা cookies এর মাধ্যমে ৷

cookie stealing হচ্ছে মূলত কম্পিউটার সেশন (the session key) কে ব্যবহার করে ইউজারের সিস্টেমের ওয়েবসার্ভিস অথবা সংরক্ষিত তথ্যে প্রবেশাধিকার পাওয়া ৷

Methods of cookie Stealing :-
cookie stealing!!

অনেক পদ্ধতিতে করা যায় ৷ সেগুলোর মধ্যে কয়েকটি হলো :

=> Cross Site Scripting (CSS/XSS)
=> Session Key Stealing
=> Using Packet Sniffing
=> Session Fixing

♦ [+] Cross Site Scripting (CSS/XSS) :
এর মাধ্যমে ভেরিফাইড সোর্স থেকে আসা হয়েছে দেখিয়ে ইউজার কম্পিউটার কে ধোঁকা দিয়ে এতে কোড রান করানো হয় ৷ এটি হ্যাকারকে ইউজার সিস্টেমে থাকা cookie গুলোর একটি copy চুরি করার অনুমতি দেয় ৷

♦ [+] Session Key Stealing : কোনো সিস্টেমে সরাসরি প্রবেশাধিকার আছে এমন attacker ইউজার কম্পিউটার
অথবা নির্দিষ্ট সার্ভারের file system এ প্রবেশ করে
session key চুরি করতে পারে ৷ যেমন আপনার পরিচিতজন, বন্ধুবান্ধব, সাইবার ক্যাফের কম্পিউটার, অথবা আপনার ল্যাপটপ, মোবাইল চোর !

♦ [+] Using Packet Sniffing (session side jacking) :
দুইটি ভিন্ন ইনফরমেশন সিস্টেমের
মধ্যবর্তী ট্রাফিক read করে session cookie চুরি করার জন্য packet sniffing পদ্ধতি ব্যবহার করা যায় ৷

♦ [+] Session Fixing :
হ্যাকারের নির্দিষ্ট session id যুক্ত
malicious link এ ক্লিক করানোর মাধ্যমে ইউজার এর সেশন আইডি manipulate করা হয় ৷ যখন ইউজার লগইন করে তখনই হ্যাকার সেনসিটিভ ইনফরমেশন হাতিয়ে নিতে পারে ৷ ইন্টারনেটের সর্বত্রই cookie ছড়িয়ে আছে ৷ cookie অনেক interesting একটা
জিনিস. কিন্তু ঠিকমত take care না করলে এগুলো আপনার private information চুরি করতে পারে ৷ ওকে কুকি মানে ক্লিয়ার করতে পারছি।এটা একটা ব্লোগ থেকে নেওয়া হয়েছে,ধন্যবাদ
ওই ব্লোগার কে!!!

★এবার আমরা আবার ফেসবুকে আসি:-

#যদি ফেসবুক একাউন্টের পাসওয়ার্ড হ্যাক হয় এবং মেইল একাউন্টটি ঠিক থাকে তবে এই লিঙ্ক থেকে রিকয়েস্ট পাঠালে পাসওয়ার্ড সমাধান পাওয়া যাবে। http ://ssl.facebook.comreset.php

#যদি ওপরের লিঙ্কে কাজ না হয় তবে পাসওয়ার্ডটি পাওয়ার জন্য
নিম্নলিখিত লিঙ্কে ক্লিক করতে
হবে। পরবর্তী নির্দেশনা অনুযায়ী
কাজ করতে হবে।

http://www.facebook.com/helpidentify.php?show_form=hack_login_changed

#যদি ই-মেইল এড্রেসটি পরিবর্তন হয়ে যায় তবে নিম্নলিখিত লিঙ্কে ক্লিক করতে হবে। ফর্মটি পূরণ করে পাঠালে ফেসবুকের কর্মকর্তারা যোগাযোগ করবে।

https://ssl.facebook.com/help/contact.php?show_form=hacked_self_recovery

এটাই আমার ৫ম ও শেষ পোষ্ট,তাই
সবাইকে বলছি কোন ভূল হলে ক্ষামা করবেন।

→ আমি আবারো বলছি আশাকরি এই পদক্ষেপ গুলো অনুসরণ করলে আপনি আপনার ফেসবুক আইডি নিরাপদে ব্যবহার করতে পারবেন।এই ভাবে মনে হয়ে আর লেখা হবে না,কিন্তু আমর একটা ফেসবুক পেজ আছে।ওই খানে
নিয়মিত লিখতে পারি।আমর পেজের ঠিকানা :- ফেসবুক/রিয়াজ

ফেসবুক হ্যাকিং পর্ব :-০১

ফেসবুক হ্যাকিং পর্ব :-০২

ফেসবুক হ্যাকিং পর্ব:- ০৩

ফেসবুক হ্যাকিং পর্ব :-০৪

পোষ্টি যদি আপনাদের উপকার হয়ে,তাহলে বন্ধুদের শেয়ার করুন।

গ্রামীনফোনের সীম থেকে টাকা কেটে নেওয়ার সার্ভিস বন্ধ করার কোডগুলো জেনে নিন।

আসসালামু আলাইকুম।

প্রিয় বন্ধুরা, আপনারা সবাই কেমন
আছেন, আশা করি খুব ভাল আছেন এবং আগামি তে যেন সব সময় ভালো থাকেন এই কামনা রইলো। Grameenphone আর গায়েব হবে না টাকা!! টাকা কেটে নেওয়ার সার্ভিস বন্ধ করার কোড গুলো আপনাদের দিয়ে দিচ্ছি। সংগ্রহ করে রাখুনঃ

image

Grameenphone All Service type “Stop all” and
send 2332

Grameenphone Welcome tune : Type “Stop”
and send to 4000

Grameenphone Internet off *500*40#

Grameenphone Facebook Type “Stop” and
send to 32665

Grameenphone Facebook USSD dial *325*22#

Grameenphone Mobile Twitting Type “Stop”
and send to 9594

Grameenphone Call Block : Type “Stop CB”
and send to 5678

Grameenphone Missed Call Alert write “STOP
MCA” and send to 6222

Grameenphone Cricket Alert Service “Stop Cric”
to 2002.

Grameenphone Sports service Type “STOP SN”
and SMS to 2002.

Grameenphone Cricket service, type “STOP CR”
and SMS to 2002.

Grameenphone Mobile Backup Write “Stop
MB” and send to 6000

Grameenphone Buddy Tracker Type “Stop” and
send to 3020

Grameenphone Music News Type “Stop BD ”
and send to 4001

Grameenphone Voice Chat dial 2828 and press
8.

Grameenphone Entertainment Box Type “Stop”
and send to 1234

Grameenphone Ebill type “Ebill cancel” and
send to 2000.

Grameenphone Job News type
“STOPJOBCATEGORY” to 3003.

Grameenphone Namaz timings: SMS “STOP N”
to 2200.

Grameenphone Hadith sharif SMS “STOP H” to
2200.

Grameenphone Voice Mail Service Dial ##62#
or ##67# or ##61# or ##21#

প্রথম প্রকাশক :- টেকটিউস।

Riazkhan

রক্তদাতার সন্ধান দেবে ‘ব্লাড হিরো’

জরুরি প্রয়োজনে রক্তদাতাদের বিস্তারিত তথ্য জানাবে ‘ব্লাড হিরো’ অ্যাপ।

image

বনানী মাঠে অনুষ্ঠিত ‘বাংলাদেশ ইন্টারনেট সপ্তাহ’ উৎসবে অ্যাপটি উন্মোচন করে ক্রিয়েটিভ আইটি।
অ্যানড্রয়েড অপারেটিং সিস্টেমে চলা অ্যাপটি গুগল প্লেস্টোর থেকে
(https://play.google.com/store/appsdetails?id=cit.bloodheropsajmr)
ডাউনলোড করে ব্যবহার করা যাবে।
click To Download playstore

অ্যাপটিতে এলাকাভিত্তিক রক্তদাতাদের রক্তের গ্রুপ জানার পাশাপাশি তাদের সঙ্গে ভয়েস বা এসএমএসের মাধ্যমে যোগাযোগের সুযোগ মিলবে। পরিচিত রক্তদাতাদের বিস্তারিত তথ্যও সংরক্ষণ করা যাবে।

ক্রিয়েটিভ আইটির মোবাইল
অ্যাপ বিভাগের পার্থ রাজ দেব,
তাইফুল হাসান, আল আমিন, কাজী জান্নাতুল ফেরদৌস ও হালিমা আক্তার অ্যাপটি তৈরি করেছেন।

Download Now blood hero app.

প্রথম প্রকাশিত :- দৈনিক কালের কণ্ঠ। টেক পাতা।

Riazkhan